বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কৈয়ারবিলে নৌকা পেতে মরিয়া বিএনপির আবজাল বসে নেই আ.লীগ নেত্রী রেখাও হাটহাজারীতে মন্দির ভাংচুরের মামলায় বিএনপির তিন নেতা গ্রেফতার ফাইজারের টিকা নিতে মানুষের হুমড়ি শেখ রাসেলের জন্মদিনে চট্টগ্রামে জেলা প্রশাসনের নানা কর্মসুচী চকরিয়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে কোমল পানীয় বাবলআপ এর ডিপো আল-রাজি চক্ষু এন্ড ডক্টরস চেম্বার প্রতিষ্ঠানটি নিলামে বিক্রয় করা হবে যে কোনো মূল্যে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন : জাসদ লামায় প্রবারণা পূর্ণিমা উপলক্ষে আর্থিক অনুদান বিতরণ খাগড়াছড়িতে মানববন্ধন প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ কাকারা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ইছমতের প্রার্থীতা ঘোষণা

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,৫৬৬,২৯৬
সুস্থ
১,৫২৯,০৬৮
মৃত্যু
২৭,৭৮৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট

পেকুয়ায় পূজামন্ডপে হামলার চেষ্টা, তোরণ ভাংচুর, হামলায় পুলিশসহ আহত-৫

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২১

কুমিল্লায় কোরআন অবমাননা সংক্রান্ত খবরের জের ধরে কক্সবাজারের পেকুয়ায় দুর্গাপূজা মন্ডপের প্রবেশ তোরণ ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এসময় হামলায় আহত হয়েছেন পুলিশ সদস্যসহ ৫জন। পুলিশঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
এসময় দুর্বৃত্তের ছোঁড়া ইটপাটকেলের আঘাতে পুলিশ সদস্য, স্থানীয় মেম্বার ও ৩ সাংবাদিকসহ ৫জন আহত হয়েছেন। আহতরা পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন।
আহতরা হলেন, পেকুয়া থানার এসআই মোজাম্মেল হোসাইন, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের মেম্বার মো. শাহনেওয়াজ, সাংবাদিক নাজিম উদ্দিন, মো. ফারুক ও রেজাউল করিম।
পেকুয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুমন বিশ্বাস বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় একদল দুর্বৃত্ত মিছিল নিয়ে এসে পেকুয়া উপজেলার কেন্দ্রীয় দুর্গা মন্দির ও সুশীল পাড়া দুর্গা মন্দিরে হামলা চেষ্টা চালায়। এসময় তারা মন্ডপ দুটির প্রবেশ তোরণ ভাংচুর করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুর্বৃত্তদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। বর্তমানে উপজেলার সকল মন্ডপে পূজা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এ ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ ও পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামানসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ধর্মীয় উম্মাদনা ছড়িয়ে কেউ যাতে গন্ডগোল সৃষ্টি করতে না পারে তার জন্য সবাইকে সচেতন থাকার আহবান জানিয়েছেন তারা।
পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, জনপ্রতিনিধি ও পুলিশ সদস্যরা দুর্বৃত্তদের প্রতিরোধের চেষ্টা করলে তারা চড়াও হয়। অতর্কিত হামলা চালিয়ে পুলিশের এসআই মোজাম্মেল হোসাইন ও ইউপি সদস্য শাহনেওয়াজকে মারধর করে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে। রাতে অতিরিক্ত পুলিশ ফোর্স মোতায়েন করা হবে। যাতে কেউ ধর্মীয় উম্মাদনা সৃষ্টি করতে না পারে।

 

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

একই রকম আরো নিউজ
© All rights reserved © 2021 matamuhuri.com
কারিগরি সহযোগিতায়: Infobytesbd.com
Jibon