রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০১:২৭ অপরাহ্ন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৭৭২,১২৭
সুস্থ
৭০৬,৮৩৩
মৃত্যু
১১,৮৭৮
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট

কক্সবাজারে ঘুষের ৯৪ লাখ টাকাসহ গ্রেফতার হওয়া সার্ভেয়ার ওয়াশিমের জামিন স্থগিত

বশির আল মামুন, চট্টগ্রাম ব্যুরো
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২২ জুলাই, ২০২০

চট্টগ্রাম ব্যুরো:
কক্সবাজারে ঘুষের ৯৪ লাখ টাকাসহ র‌্যাবের কাছে হাতেনাতে গ্রেপ্তার হওয়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের এলএ শাখার সার্ভেয়ার ওয়াশিম খানের জামিন স্থগিত করে দিয়েছে চেম্বার জজ। ২১ জুলাই মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি মো. নুরুজ্জামানের ভার্চুয়াল চেম্বার আদালত এ আদেশ দেন। এর আগে গত ৭ জুলাই হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের ভার্চুয়াল আদালত তাকে জামিন দেন।
সূত্র জানায়, চলতি বছরের ১৯ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রহণ (এলএ) শাখার সার্ভেয়ার ওয়াসিশম খানের বাসায় অভিযান চালিয়ে বাসার বার্থরুমের ভেন্টিলেটরে রাখা একটি থলে থেকে নগদ ৬৬ লাখ ৭৫ হাজার ৫৫০ টাকা উদ্ধার করে র‌্যাব-১৫। পরে সার্ভেয়ার ফেরদৌস খানের বাসায় অভিযান চালিয়ে বাসার আলমিরার একটি থলে থেকে ২৬ লাখ ৮৪ হাজার ৬০০ টাকা উদ্ধার করা হয়। তাদের বাসা থেকে বিভিন্ন ব্যাংকের চেক, ল্যাবটপ, মোবাইল, পাসপোর্ট, দুটি এলএ শাখার খতিয়ানের রেজিস্টার এবং এক হাজারের অধিক ভূমি অধিগ্রহণ মামলার (এলএ) আবেদন পাওয়া যায়।
পরের দিন ২০ ফেব্রুয়ারি র‌্যাব-১৫ ধৃত আসামীকে সহ কক্সবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। মামলাটি দুদক আইনের হওয়ার কারণে থানায় র‌্যাবের লিখিত আবেদনটি ডায়েরি হিসেবে রেকর্ড করে অভিযোগটি দুদক চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয় (সজেকা)-২ এ প্রেরণ করে কক্সবাজার মডেল থানা। পরে দুদক প্রধান কার্যালয়ের অনুমোদন সাপেক্ষে গত ১০ মার্চ চট্টগ্রাম সজেকা-২ এর উপ-সহকারি পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন বাদী হয়ে সার্ভেয়র মো. ওয়াশিম খানকে (৩৭) প্রধান আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন। র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া সার্ভেয়ার ওয়াশিমকে দুদকের দায়ের করা মামলায় শ্যোন অ্যারেস্ট দেখানো হয়। মামলার অন্য আসামীরা হলো কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রহণ শাখার সার্ভেয়ার মো. ফেরদৌস খান (৩৬) এবং মো. ফরিদ উদ্দিন (৩৬)। আসামীরা একে অপরের সহযোগিতায় প্রতারণার মাধ্যমে অসৎ উদ্দেশে অর্পিত ক্ষমতার অপব্যবহার করে কক্সবাজার জেলার ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্তদের নিকট থেকে ৯৩ লাখ ৬০ হাজার ১৫০ টাকা ঘুষ দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জনপূর্বক দ-বিধির ১৬১, ১৬২, ৪২০, ১০৯, ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধে আইনের ৫(২) এবং মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২ এর ৪(২) ধারায় অপরাধ করেছেন বলে মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। সার্ভেয়ার ওয়াশিম খান পটুয়াখালী জেলার বাউফল থানা ধান্দি এলাকার মো. দলিল উদ্দিন খানের ছেলে।
এদিকে দুদকের মামলার পর করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়া ২৬ মার্চ থেকে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে। এতে নি¤œ আদালতসহ সরকারি অফিস আদালত বন্ধ হয়ে যায়। গত ৩১ মে থেকে সরকার সাধারণ ছুটি প্রত্যাহার করে নিলেও আদালতের স্বাভাবিক কার্যাক্রম বন্ধ থাকে। করোনাকালীন এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে গত ৭ জুলাই উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভ করেন ঘুষের ৯৪ লাখ টাকাসহ গ্রেপ্তার হওয়া কক্সবাজার এলএ অফিসের সার্ভেয়ার ওয়াশিম খান। এরপর লিভ টু আপিল করে দুদকের আইনজীবীরা। গতকাল শুনানী শেষে চেম্বার জজ হাইকোর্টের জামিন আদেশ স্থগিত করে আদেশ দেন।
দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, ‘হাইকোর্টে ওয়াশিম খানের জামিন হওয়ার পর দুদকের পক্ষে আদালতে আমরা লিভ টু আপিল করেছি। মঙ্গলবার (২১ জুলাই) শুনানী শেষে চেম্বার বিচারপতি মো. নুরুজ্জামানের ভার্চুয়াল চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে দেন। এখন আসামী ওয়াশিমের কারাগার থেকে ছাড়া পাওয়ার কোন সুযোগ নেই।’

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

একই রকম আরো নিউজ
© All rights reserved © 2021 matamuhuri.com
কারিগরি সহযোগিতায়: Infobytesbd.com
Jibon