মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১১:১৩ অপরাহ্ন

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৮৩৩,২৯১
সুস্থ
৭৭১,০৭৩
মৃত্যু
১৩,২২২
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
৩,৩১৯
সুস্থ
২,২৪৩
মৃত্যু
৫০
স্পন্সর: একতা হোস্ট

রাজনীতির এক উজ্জ্বল নক্ষত্র খসে গেল

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ জুন, ২০২০

মাতামুহুরী ডেস্ক :

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন বর্ষীয়ান নেতা মোহাম্মদ নাসিম। ১৯৪৮ সালের ২ এপ্রিল সিরাজগঞ্জ জেলার কাজীপুর উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন এই বর্ষীয়ান নেতা। বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ক্যাপ্টেন মনসুর আলীর সন্তান তিনি। বাবা রাজনীতি করেছেন বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে। ছেলে রাজনীতি করেছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সঙ্গে। তার রক্তে মিশে আছে রাজনীতি। শুধু দলেই নয়, দেশের রাজনীতিতে পিতা-পুত্রের প্রভাব যেন ঐতিহ্যগত। শনিবার (১৩ জুন) সকাল ১১টা ১০ মিনিটে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে মারা যান তিনি।

তিনি ছিলেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর অন্যতম সদস্য। একইসঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের মুখপাত্র তিনি। রাজনীতির পাশাপাশি সমাজকল্যাণমূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত আছেন মোহাম্মদ নাসিম। ঢাকাসহ নিজ এলাকা সিরাজগঞ্জে বেশ কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছেন।

ছাত্রজীবনের প্রথম দিকে ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতিরৃ সঙ্গে জড়িত ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম। পরে অল্প কিছু দিন ছাত্রলীগের রাজনীতিও করেন। পড়াশোনাও করেছেন রাজনীতি নিয়েই। তৎকালীন সময়ে জগন্নাথ কলেজ (বর্তমানে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়) থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন নাসিম। রাজনৈতিক জীবনে সফলতাও কম নেই। ১৯৮৬, ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন মোহাম্মদ নাসিম। ২০১৪ সালে সিরাজগঞ্জ-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। এর পর ২০১৪ সালে বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন।

মোহাম্মদ নাসিম ভোটের রাজনীতিতে অত্যন্ত সফল। ১৯৮৬ সালে তিনি প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন। সিরাজগঞ্জ-১ সংসদীয় আসন (কাজীপুর) থেকে পাঁচবার বিজয়ী হয়েছেন। ২০০৮ সালের নির্বাচনে তৎকালীন ১/১১ সরকারের দেয়া মামলার কারণে অংশগ্রহণ করতে পারেননি নাসিম। ওই নির্বাচনে তার সন্তান তানভীর শাকিল জয়কে মনোনয়ন দেয় আওয়ামী লীগ। এরপর ২০১৪ সালের নির্বাচনে মোহাম্মদ নাসিমকে আবার মনোনয়ন দেয় আওয়ামী লীগ। সে সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

রাজনৈতিক জীবনে রাজপথে সবসময়ই সক্রিয় ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম। সরকারবিরোধী আন্দোলনের কারণে বিভিন্ন সময় নির্যাতন সইতে হয়েছে তাকে। রোষানলের শিকার হয়েছিলেন ১/১১ সরকারেরও। সে সময় গ্রেপ্তার হয়ে দীর্ঘদিন কারাগারে কাটান। ওই সময় চরম অসুস্থও হয়ে পড়েন তিনি। তারপরও দলের হাল ছাড়েননি।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

একই রকম আরো নিউজ
© All rights reserved © 2021 matamuhuri.com
কারিগরি সহযোগিতায়: Infobytesbd.com
Jibon